বীর চূড়ামনি রঘুনাথ

Literature_of_soil

ঝাড়গ্রামের বিশিষ্ট সাহিত্যিক,  কবি ললিতমোহন মাহাত মহাশয়ের লেখা  

রঘুনাথ তুমি বড় যোদ্ধা মাহাতদের শিরোমনি, তোমার আলোয় সিনান করে শুনি তব কঠোর বানী।
হে বীর যোদ্ধা তোমার দাপটে কাঁপে ইংরেজ বাহিনী, ক্রান্তিকারী বীর রঘুনাথ চুয়াড় বিদ্রোহের তুমি চূড়ামনি।

বাবা কাশিরাম, মা করমী, পুণ্যভূমি সেই ঘুটিয়াডি গ্রামে,
তোমাদের ঘরে জনমিল রঘুনাথ জয়ধ্বনি উঠে তোমাদের নামে।
ইতিহাস তখন ইংরেজদের তাঁবেদার, লিখল না এই কাহিনী,
বীর রঘুনাথ জেনে রাখ তোমার দখলে রয়েছে আমাদের হৃদয় খানি।

রঘুনাথ তুমি জমিদার ছিলে, তাই অনেক খাজনা চাপালো ইংরাজ,
প্রতিবাদ করে তীর-ধনুক ধরতেই ওদের মাথায় পড়ল বিরাট বাজ।
“রঘুনাথ বাহিনী” গঠন করে লড়াই করতেই চমকালো ইংরেজ বাহিনী,
বীর চূড়ামনি রঘুনাথ তুমি চূয়াড় বিদ্রোহের উৎস মুখের সোনার খনি।

ইংরেজদের সঙ্গে রাঘুনাথের সে এক ভীষন লড়াই শুরু হোল,
রঘুনাথ বাহিনীর কাছে জঙ্গল মাঝে ইংরেজদের নিদারুন হার হলো।
নিমুধন কেল্লা, কিংচুগ পরগনা দখল নিল অতি সহজেই রঘুনাথ বাহিনী,
দেখা গেল সোনাহাতু, তামাড়,বরাভূমে তোমার বিদ্রোহী আগুনের ঝলকানি।

যুদ্ধ কালে জঙ্গল মাঝে দেশের মানুষই করল যে গো বেইমানি,
রঘুনাথ বাহিনীর ঠিকানা গোপনে জানিয়ে করল বেদম শয়তানি।
বীরসা-অচল সিং,সিধু-কানু,গোপালের দশা হোল তুমি গুলিতে মরলে জানি,
বীর রঘুনাথ তোমার অকাল মরনে,নবজাগরনের পদধ্বনি শুনি।

ভুলব না ভুলব না রঘুনাথ তোমায়,মাহাত জাতি তোমায় সেলাম জনাব,
চূয়াড় বিদ্রোহের প্রথম শহীদ যে তুমি,ইতিহাসকে সে কথা বলাব।
চিরকাল মনে রাখব তোমায় থাকবে হিয়ায় তোমার মূরতি খানি,
‘শিখ-শিখর-নাগপুর-আধা আধি খড়্গপুর- ধ্বনিত হতে থাকবে এই বীরত্ব কাহিনী।

Leave a Reply